ঢাকা ০১:৫৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ :
Logo হাজারো অসহায়ের মাঝে ইফতার ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ করলেন মেয়র Logo কল্পলোক আবাসিক মসজিদের জায়গা ব্যক্তির নামে বরাদ্দ বাতিলের দাবীতে মানববন্ধন Logo নিঃস্বার্থে মানব সেবা গ্রুপের ঈদ উপলক্ষে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ  Logo ফুলপুরে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট,ট্রাইবাল ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন হিন্দু বৌদ্ধ ঐক্য Logo রামপুর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মোঃ আবুল কাশেমের মৃত্যুতে Logo Logo “মুসলিম কমিউনিটি মৌলভীবাজার” এর তাৎপর্য‍‍` শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত Logo মশা নিয়ন্ত্রণে গবেষণার জন্য গবেষণাগার চালুর ঘোষণা দিয়েছেন Logo বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের হৃদয়ে -চেতনায় বাংলাদেশ Logo সাউদার্ন ইউনিভার্সিটিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন পালন

চায়ের রাজধানীতে হঠাৎ বয়ে যাচ্ছে কনকনে শীতের দাপট

নিজস্ব প্রতিবেদন
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৫:৫৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ মার্চ ২০২৪ ৩৮ বার পড়া হয়েছে
 চায়ের রাজধানী মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে হঠাৎ শীতের প্রকোপ বেড়েছে বয়ে যাচ্ছে কনকনে শীত ও হিমেল হাওয়া। শীতের দাপটে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন বুধবার (৬ মার্চ) সন্ধ্যা থেকে বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) ভোর পর্যন্ত হঠাৎ করে তাপমাত্রা কমে যায় বৃহস্পতিবার ০৭ মার্চ ২০২৪ইং সকাল ৬টার সময় শ্রীমঙ্গলে ১১ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করে জেলা আবহাওয়া অফিস। এদিকে ফাল্গুন মাসের শেষ সপ্তাহে এসে শীতের প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় উপজেলাবাসীকে কিছুটা বিপাকে পড়তে হয়েছে শ্রীমঙ্গলের শহরতলী হবিগঞ্জ রোডের পল্লী বিদ্যুৎ সংলগ্ন এলাকায় ভাই ভাই ভ্যারাইটিজ স্টোরের দোকানের মালিক ও একই এলাকার বাসিন্দা মোঃ দুলাল মিয়া বলেন, শীত কমে গেছে ভেবে গত মাসেই আমরা শীতের কাপড়-চোপড়, কম্বল, লেপ সব রোদে শুকিয়ে ওয়ারড্রবে গুছিয়ে রাখি। কিন্তু হঠাৎ মাঘ মাসের শীত আসবে কে জানে। তাই রাতটি শীতের কষ্টে কাটিয়েছি। শহরতলী পল্লী বিদ্যুৎ সংলগ্ন এলাকায় রাতে নৈশপ্রহরীর দায়িত্ব পালন করেন মোঃ রমজান মিয়া। তার সঙ্গে আলেপকালে তিনি বলেন, আমি হাত লম্বা একটি শার্ট পড়ে পাহারা দিতে এসে শীতে কাবু হয়ে গিয়েছি। কারণ শীতের জ্যাকেট বাসায় রেখে দিয়েছিলাম, আর বের করিনি। মার্চ কিংবা ফাল্গুনেও যে শীতের প্রকোপ বাড়ে এটা কখনও শুনিনি, অনেক কষ্ট সহ্য করে ডিউটি করলাম শ্রীমঙ্গল হবিগঞ্জ রোডের পুরান বাজার থেকে শাহজিরবাজার রোডের টমটম চালক মোঃ জাহির মিয়া বলেন, বাসা থেকে শুধু একটি পাঞ্জাবি পরে টি শার্ট পড়ে গাড়ি নিয়ে বের হই। রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শীত বাড়ায় বিপাকে পড়ি। তাই রাত ১১টার আগেই গাড়ি বন্ধ করে বসায় চলে আসি।
শ্রীমঙ্গল ৫০ শয্যাবিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের মেডিকেল অফিসার সূত্রে জানা যায়, গরমের মৌসুমে হঠাৎ শীত বাড়ায় উপজেলায় বেড়েছে ঠাণ্ড, কাশি, সর্দি, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া, নিউমোনিয়াসহ নানা রোগ শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষক বিবলু চন্দ্র দাশ জানান, গত এক সপ্তাহে শ্রীমঙ্গলে তাপমাত্রা ১৩ থেকে ১৭ ডিগ্রির ভেতরে ওঠানামা করে। বুধবার শ্রীমঙ্গলে ১৪ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ০৭ মার্চ ২০২৪ইং, সকালে তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রিতে নেমে আসে আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ শ্রীমঙ্গল কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনিসুর রহমান আনিস জানান, শ্রীমঙ্গল উপজেলায় বৃহস্পতিবার ০৭ মার্চ ২০২৪ইং, ভোর ৬টার সময় উপজেলার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। এর আগে গত ২৮ জানুয়ারি শ্রীমঙ্গলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

চায়ের রাজধানীতে হঠাৎ বয়ে যাচ্ছে কনকনে শীতের দাপট

আপডেট সময় : ০৪:৪৫:৫৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ মার্চ ২০২৪
 চায়ের রাজধানী মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে হঠাৎ শীতের প্রকোপ বেড়েছে বয়ে যাচ্ছে কনকনে শীত ও হিমেল হাওয়া। শীতের দাপটে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন বুধবার (৬ মার্চ) সন্ধ্যা থেকে বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) ভোর পর্যন্ত হঠাৎ করে তাপমাত্রা কমে যায় বৃহস্পতিবার ০৭ মার্চ ২০২৪ইং সকাল ৬টার সময় শ্রীমঙ্গলে ১১ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করে জেলা আবহাওয়া অফিস। এদিকে ফাল্গুন মাসের শেষ সপ্তাহে এসে শীতের প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় উপজেলাবাসীকে কিছুটা বিপাকে পড়তে হয়েছে শ্রীমঙ্গলের শহরতলী হবিগঞ্জ রোডের পল্লী বিদ্যুৎ সংলগ্ন এলাকায় ভাই ভাই ভ্যারাইটিজ স্টোরের দোকানের মালিক ও একই এলাকার বাসিন্দা মোঃ দুলাল মিয়া বলেন, শীত কমে গেছে ভেবে গত মাসেই আমরা শীতের কাপড়-চোপড়, কম্বল, লেপ সব রোদে শুকিয়ে ওয়ারড্রবে গুছিয়ে রাখি। কিন্তু হঠাৎ মাঘ মাসের শীত আসবে কে জানে। তাই রাতটি শীতের কষ্টে কাটিয়েছি। শহরতলী পল্লী বিদ্যুৎ সংলগ্ন এলাকায় রাতে নৈশপ্রহরীর দায়িত্ব পালন করেন মোঃ রমজান মিয়া। তার সঙ্গে আলেপকালে তিনি বলেন, আমি হাত লম্বা একটি শার্ট পড়ে পাহারা দিতে এসে শীতে কাবু হয়ে গিয়েছি। কারণ শীতের জ্যাকেট বাসায় রেখে দিয়েছিলাম, আর বের করিনি। মার্চ কিংবা ফাল্গুনেও যে শীতের প্রকোপ বাড়ে এটা কখনও শুনিনি, অনেক কষ্ট সহ্য করে ডিউটি করলাম শ্রীমঙ্গল হবিগঞ্জ রোডের পুরান বাজার থেকে শাহজিরবাজার রোডের টমটম চালক মোঃ জাহির মিয়া বলেন, বাসা থেকে শুধু একটি পাঞ্জাবি পরে টি শার্ট পড়ে গাড়ি নিয়ে বের হই। রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শীত বাড়ায় বিপাকে পড়ি। তাই রাত ১১টার আগেই গাড়ি বন্ধ করে বসায় চলে আসি।
শ্রীমঙ্গল ৫০ শয্যাবিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের মেডিকেল অফিসার সূত্রে জানা যায়, গরমের মৌসুমে হঠাৎ শীত বাড়ায় উপজেলায় বেড়েছে ঠাণ্ড, কাশি, সর্দি, শ্বাসকষ্ট, ডায়রিয়া, নিউমোনিয়াসহ নানা রোগ শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষক বিবলু চন্দ্র দাশ জানান, গত এক সপ্তাহে শ্রীমঙ্গলে তাপমাত্রা ১৩ থেকে ১৭ ডিগ্রির ভেতরে ওঠানামা করে। বুধবার শ্রীমঙ্গলে ১৪ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ০৭ মার্চ ২০২৪ইং, সকালে তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রিতে নেমে আসে আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ শ্রীমঙ্গল কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনিসুর রহমান আনিস জানান, শ্রীমঙ্গল উপজেলায় বৃহস্পতিবার ০৭ মার্চ ২০২৪ইং, ভোর ৬টার সময় উপজেলার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। এর আগে গত ২৮ জানুয়ারি শ্রীমঙ্গলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়।