ঢাকা ০১:০৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ :
Logo হাজারো অসহায়ের মাঝে ইফতার ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ করলেন মেয়র Logo কল্পলোক আবাসিক মসজিদের জায়গা ব্যক্তির নামে বরাদ্দ বাতিলের দাবীতে মানববন্ধন Logo নিঃস্বার্থে মানব সেবা গ্রুপের ঈদ উপলক্ষে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ  Logo ফুলপুরে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট,ট্রাইবাল ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন হিন্দু বৌদ্ধ ঐক্য Logo রামপুর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক মোঃ আবুল কাশেমের মৃত্যুতে Logo Logo “মুসলিম কমিউনিটি মৌলভীবাজার” এর তাৎপর্য‍‍` শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত Logo মশা নিয়ন্ত্রণে গবেষণার জন্য গবেষণাগার চালুর ঘোষণা দিয়েছেন Logo বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের হৃদয়ে -চেতনায় বাংলাদেশ Logo সাউদার্ন ইউনিভার্সিটিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন পালন

কল্পলোক আবাসিক মসজিদের জায়গা ব্যক্তির নামে বরাদ্দ বাতিলের দাবীতে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদন
  • আপডেট সময় : ১০:২৬:৫৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৭ এপ্রিল ২০২৪ ৩৩ বার পড়া হয়েছে

চট্টগ্রাম নগরীর বাকলিয়া থানার কল্পলোক আবাসিক জামে মসজিদের জায়গা সিডিএ কর্তৃক অবৈধভাবে ব্যক্তি মালিকানায় দেয়া বরাদ্ধ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন মুসল্লিরা। শুক্রবার (৫ এপ্রিল) জুমার নামাজের পর  কল্পলোক আবাসিক (২য় পর্যায়) এর মসজিদ কমিটি, মুসল্লি পরিষদ ও কল্পলোক এলাকাবাসী মসজিদের সামনে এই মানববন্ধনের আয়োজন করে। কল্পলোক আবাসিক কল্যান সমিতির সভাপতি ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক, কল্পলোক আবাসিক এলাকা জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি শওকত আলী তালুকদার, চট্টগ্রাম জর্জ কোর্টেও আইনজীবী আজিজুল হক প্রমুখ। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, কল্পলোক আবাসিকে বসবাসকারী জনৈক ব্যক্তির কালো থাবা থেকে আল্লাহর ঘর মসজিদও রক্ষা পাচ্ছেননা। যখন কোন একটি এলাকাকে আবাসিক এলাকা ঘোষণা করা হয়, তখন মসজিদের জন্য নির্ধারিত জায়গা বরাদ্ধ রাখা হয়, কিন্তু কোন সীমানা নির্ধারণ করা হয় না।

 

 

তৎকালীন মসজিদ কমিটি সিডিএ বরাবর একটি বরাদ্ধের জন্য আবেদন করেন, এর পরিপ্রেক্ষিতে সিডিএ মসজিদের জন্য ২০ কাঠার কম-বেশি বরাদ্ধপত্র জারি করেন, কিন্তু দেখা যায় জনৈক প্রভাবশালী ব্যক্তি মসজিদকে ২০ কাঠা দিয়ে বাকি জায়গা নিজের নামে প্লট সৃষ্টি করেছেন, এই আবাসিকে যেখানে ৩.৫০ কাঠার উপরে কোন প্লটের অনুমোদন নেই, সেখানে তিনি ৪.৫০ কাঠার নতুন প্লট তৈরি করে নেন।
মসজিদের জায়গায় অবৈধভাবে সৃষ্ট প্লটটি বাতিলের জন্য আদালতেও মামলা করা হয়েছে। আমরা দেখতে পাচ্ছি ইদানিং কতিপয় ভুমিদস্যু মসজিদের চৌহাদ্দির জায়গাটি দখল করার চেষ্টা করছে। ২০১৬ সাল থেকে মসজিদের চৌহদ্দির ভিতর এই জায়গায় মানুষ নামাজ আদায় কওে আসতেছে। যারা নিজের নামে মসজিদের জায়গা দখল করে নিতে চাই তাদের স্থান এই কল্পলোক আবাসিকে হবেনা, তারা যতই ক্ষমতাবান হোকনা কেন তাদেরকে প্রতিহত করা হবে। এজন্য মুসল্লিরা চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন, সিডিএ, জর্জকোর্ট ও প্রধামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। #

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

কল্পলোক আবাসিক মসজিদের জায়গা ব্যক্তির নামে বরাদ্দ বাতিলের দাবীতে মানববন্ধন

আপডেট সময় : ১০:২৬:৫৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৭ এপ্রিল ২০২৪

চট্টগ্রাম নগরীর বাকলিয়া থানার কল্পলোক আবাসিক জামে মসজিদের জায়গা সিডিএ কর্তৃক অবৈধভাবে ব্যক্তি মালিকানায় দেয়া বরাদ্ধ বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন মুসল্লিরা। শুক্রবার (৫ এপ্রিল) জুমার নামাজের পর  কল্পলোক আবাসিক (২য় পর্যায়) এর মসজিদ কমিটি, মুসল্লি পরিষদ ও কল্পলোক এলাকাবাসী মসজিদের সামনে এই মানববন্ধনের আয়োজন করে। কল্পলোক আবাসিক কল্যান সমিতির সভাপতি ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক, কল্পলোক আবাসিক এলাকা জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি শওকত আলী তালুকদার, চট্টগ্রাম জর্জ কোর্টেও আইনজীবী আজিজুল হক প্রমুখ। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, কল্পলোক আবাসিকে বসবাসকারী জনৈক ব্যক্তির কালো থাবা থেকে আল্লাহর ঘর মসজিদও রক্ষা পাচ্ছেননা। যখন কোন একটি এলাকাকে আবাসিক এলাকা ঘোষণা করা হয়, তখন মসজিদের জন্য নির্ধারিত জায়গা বরাদ্ধ রাখা হয়, কিন্তু কোন সীমানা নির্ধারণ করা হয় না।

 

 

তৎকালীন মসজিদ কমিটি সিডিএ বরাবর একটি বরাদ্ধের জন্য আবেদন করেন, এর পরিপ্রেক্ষিতে সিডিএ মসজিদের জন্য ২০ কাঠার কম-বেশি বরাদ্ধপত্র জারি করেন, কিন্তু দেখা যায় জনৈক প্রভাবশালী ব্যক্তি মসজিদকে ২০ কাঠা দিয়ে বাকি জায়গা নিজের নামে প্লট সৃষ্টি করেছেন, এই আবাসিকে যেখানে ৩.৫০ কাঠার উপরে কোন প্লটের অনুমোদন নেই, সেখানে তিনি ৪.৫০ কাঠার নতুন প্লট তৈরি করে নেন।
মসজিদের জায়গায় অবৈধভাবে সৃষ্ট প্লটটি বাতিলের জন্য আদালতেও মামলা করা হয়েছে। আমরা দেখতে পাচ্ছি ইদানিং কতিপয় ভুমিদস্যু মসজিদের চৌহাদ্দির জায়গাটি দখল করার চেষ্টা করছে। ২০১৬ সাল থেকে মসজিদের চৌহদ্দির ভিতর এই জায়গায় মানুষ নামাজ আদায় কওে আসতেছে। যারা নিজের নামে মসজিদের জায়গা দখল করে নিতে চাই তাদের স্থান এই কল্পলোক আবাসিকে হবেনা, তারা যতই ক্ষমতাবান হোকনা কেন তাদেরকে প্রতিহত করা হবে। এজন্য মুসল্লিরা চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন, সিডিএ, জর্জকোর্ট ও প্রধামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। #